সংবাদ

শ্রেষ্ঠ কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ❝রংপুর পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট❞

শিক্ষা মন্ত্রণালয় কর্তৃক আয়োজিত জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ -২০২৪ প্রতিযোগিতায় জাতীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসেবে নির্বাচিত হয়েছে ❝রংপুর পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট❞।

জাতীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হওয়ায় রংপুর পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের সকল শিক্ষার্থী ,শিক্ষক, কর্মচারীরা বেশ আনন্দিত।

রংপুর পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের শ্রেষ্ঠত্ব অর্জনে সুযোগ্য অধ্যক্ষ প্রকৌশলী ফরিদ উদ্দিন আহম্মেদ এর নেতৃত্বে সকল শিক্ষার্থী ,শিক্ষক, কর্মচারীদের অবদান অপরিসীম। এ অর্জনে রংপুর পলিটেকনিক কারিগরি অঙ্গনে সুবিশাল স্থান পেয়েছে।

আরও পড়ুন: কোন টেকনোলজিতে পড়বেন?

আরও পড়ুন: ডিপ্লোমা-ইন-ইঞ্জিনিয়ারিং কেন পড়বেন?

আরও পড়ুন: দেশের সেরা দশটি সরকারি পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট

বাংলাদেশের অন্যতম প্রাচীন ও বৃহত্তম কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান রংপুর পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট। যা রংপুর শহরের জুম্মাপাড়ায় অবস্থিত এ ইনস্টিটিউট। এ ছাড়া বিপরীতে বিভাগীয় কারিগরি শিক্ষাবোর্ড অবস্থিত রয়েছে।

১৮৮২ সালে প্রযুক্তি শিক্ষায় দক্ষ জনসম্পদ তৈরীর লক্ষে ‍“বেইলী ব্রীজ গোবিন্দ লাল টেকনিক্যাল স্কুল” নামে এ প্রতিষ্ঠানের যাত্রা শুরু হয়। ১৯৬২ সালে আইয়ুব খান সরকার কর্তৃকগৃহীত ৭ স্টেপ কর্মসূচিতে সিভিল ও পাওয়ার টেকনোলজি নিয়ে প্রতিষ্ঠিত হয় ‍“রংপুর টেকনিক্যাল ইনস্টিটিউট”।

১৯৬৮ সালে মেকানিক্যাল ও ইলেকট্রিক্যাল টেকনোলজি অন্তর্ভুক্ত করে নতুন নামকরণ করা হয় ‍“রংপুর পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট” । এরপরে ১৯৯২ সালে ইলেকট্রনিক্স, ২০০২ সালে কম্পিউটার এবং ২০০৬ সালে ইলেক্ট্রোমেডিক্যাল টেকনোলজি অন্তর্ভুক্ত করা হয় এ কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে।

ক্যাম্পাস: মূল ক্যাম্পাসে রয়েছে তিন তলা বিশিষ্ট দুটি আকাদেমি ভবন, অফিস, লাইব্রেরী, আধুনিক যন্ত্রপাতি সমৃদ্ধ ওয়ার্কশপ ভবন, জিমনেশিয়াম ও ল্যবরেটরী এবং একটি ৫০০ জন ধারণক্ষমতা সম্পন্ন অডিটোরিয়াম। এ ছাড়া মসজিদ ও শহীদ মিনার রয়েছে।

শিক্ষা কার্যক্রম: রংপুর পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট এর প্রতিষ্ঠার প্রথম বর্ষে মাত্র ১২০ জন ছাত্র-ছাত্রী এবং চারটি প্রযুক্তি (সিভিল, ইলেট্রিক্যাল, মেকানিক্যাল ও পাওয়ার) নিয়ে ডিপ্লোমা-ইন-ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্স চালু হয়েছিল।

বর্তমানে অত্র প্রতিষ্ঠানে চার বছর মেয়াদি কোর্সে ৭ টি বিভাগ চলছে। এখানে প্রতিটি বিভাগে দু’টি করে শিফট চলমান এবং প্রতিটি শিফটে ৬০ জন করে মোট ১২০ জন শিক্ষার্থী ভর্তির সুযোগ রয়েছে।

রূপকল্প ২০১৮: রংপুর পলিটেকনিককে বাংলাদেশের সফলতম পলিটেকনিকের মর্যাদায় প্রতিষ্ঠিত করতে তৈরি করা হয়েছে ‘রূপকল্প-২০১৮’ । সাবেক অধ্যক্ষ প্রকৌশলী খোন্দকার গোলাম মোস্তফার নেতৃত্বে শুরু হয়েছিল ‘রূপকল্প-২০১৮’।

Diploma News

কারিগরি ও ডিপ্লোমা শিক্ষার্থীদের সেরা পোর্টাল DIPLOMA NEWS

Related Articles

Back to top button